আর্চারকে হুমকি মানছেন ইউনুস

উস্টারশায়ারের ইনডোরে নিজেদের ব্যস্ত রাখে পাকিস্তানের খেলোয়াড়রা —পিসিবি/টুইটার

বিশ্বে সব ধরনের ক্রিকেট যেখানে বন্ধ, সেখানে ইংল্যান্ডে এখন অবস্থান করছে দুইটি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট দল। ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল আগে থেকেই আছে, এবার পৌঁছে গেল পাকিস্তান দল। গতকাল সকালে তারা পা রাখে ইংল্যান্ডে।

এই বহরে আছেন ২০ জন ক্রিকেটার ও ১১ জন স্টাফ। ইংল্যান্ডে আরেক দফা কোভিড-১৯ পরীক্ষার পর ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকবেন তারা। সূচি চূড়ান্ত না হলেও ইংল্যান্ডের মাটিতে তিনটি করে টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি খেলবে পাকিস্তান দল। সিরিজে ইংলিশ পেসার জোফরা আর্চারই সবচেয়ে বড় হুমকি হবে বলে মনে করছেন ব্যাটিং কোচ ইউনুস খান।

ইউনুস বলেন, ‘আর্চার সত্যিকারের হুমকি। বড় ম্যাচ উইনার। তার স্নায়ুশক্তি খুবই প্রকট। যার প্রমাণ তিনি দিয়েছেন বিশ্বকাপ ফাইনালের সুপার ওভারে। তার বোলিংয়ের যেমন ধার রয়েছে তেমনি তার উঁচু করে বল করার ধরন খুবই চমত্কার। এটা তার বোলিংয়ের মূলমন্ত্র।’

তবে ইউনুস মানছেন, বার্বাডোজে জন্ম নেওয়া আর্চারকে মোকাবিলা করা সম্ভব। তিনি বলেন, ‘অবশ্য তাকে নিয়েই বেশি আলোচনা। এটা তাকে চাপে ফেলতে পারে। আমি আমার ব্যাটসম্যানদের বলব তারা যেন গা বাঁচিয়ে ব্যাকফুটে খেলেন। কারন তার সুইঙ্গার খুবই বিপজ্জনক।’

আর্চারের প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটের অভিষেক ম্যাচের ঘটনা উল্লেখ করে ইউনুস বলেন, ‘আমার মনে আছে তার বিপক্ষে সাইড গেমে খেলার কথা। ঐ ম্যাচে তিনি ৫ উইকেট শিকার করেছিলেন। তখনো তিনি বর্তমানের মতো নিজের সেরা বোলিংয়ে পৌঁছাননি।’

অভিজ্ঞ বোলার জেমস অ্যান্ডারসন ও স্টুয়ার্ট ব্রডকেও ভুলছেন না ইউনুস। বললেন, ‘অ্যান্ডারসন ও ব্রড হচ্ছেন খুবই অভিজ্ঞতাসমৃদ্ধ। তারা সব সময় অসাধারণ জুটি। ইংল্যান্ডের ম্যাচ জয়ে বড় ভূমিকা থাকে এই জুটির। তবে আগস্টে আবহাওয়া থাকবে শুষ্ক এবং খুব বেশি মেঘলাভাব থাকে না। তাই বেশ ভালোভাবেই তাদের সামাল দেওয়া সম্ভব।’

পাকিস্তানি কোচের মতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিতে হলে তাদের শক্তিশালী বোলিং মোকাবিলা করে প্রথম ইনিংসে ৩০০ থেকে ৩৫০ রান তুলতে হবে। ইউনুস একই সঙ্গে চাপ সামলানোর কথাও বললেন, ‘ইংল্যান্ড সফরে আপনাকে মোকাবিলা করতে হবে কৌশল এবং স্নায়ুচাপের সঙ্গে। সেটি মোকাবিলা করতে পারলে আমি নিশ্চিত দল ভালো করতে পারবে।’

LEAVE A REPLY