‘সিনেমাটির পারিশ্রমিক না দিলেও কষ্ট থাকতো না’

আগামীবছরের শুরুতেই মুক্তি পাচ্ছে দীপিকা পাডুকোনের সিনেমা ‘ছপাক’। এ বছরে মূলত এই সিনেমায় তার লুক বেশ আলোচনায় এসেছেন।

মেকআপের ছোঁয়ায় চেহারা পুরো পাল্টে গিয়েছিল দীপিকার। ঠিক যেন লক্ষ্মী আগরওয়াল হয়ে উঠেছেন। লক্ষ্মী আগরওয়াল নিজেই স্বীকার করেছিলেন যে, ঠিক যেন তারই মতো লাগছে দীপিকাকে।

মার্চে যখন দীপিকার ফার্স্ট লুক প্রকাশ করেন তখন সকলেই অবাক হয়ে গিয়েছিলেন। দীপিকা নিজেও জানিয়েছিলেন ক্যারিয়ারের সেরা সিনেমাগুলোর একটি ‘ছপাক’। ছবির ট্রেলার মুক্তি পেতে যাচ্ছে আগামীকাল। এদিনই বিশ্ব মানবাধিকার দিবস।

প্রথম থেকে ছবির পরিচালক-প্রযোজক কারো মাথাতেই বিশ্ব মানবাধিকার দিবসে ‘ছপাক’-এর ট্রেলার রিলিজ করার কথা আসেনি। কিন্তু ঘটনাচক্রে এমন কাণ্ড ঘটায় সকলকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন ছবির পরিচালক মেঘনা গুলজার।

দীপিকা এই সিনেমা নিয়ে বলেন, ‘বেশিরভাগ সিনেমা করার আগে সেই সিনেমাটি কেমন ব্যবসা করবে সেটির একটি ধারণা থাকে বা করে নিই। কিন্তু আবার এমন সিনেমা থাকে যেটিতে কাজ করতে পারাটাই সবচেয়ে বড় বিষয়। পারিশ্রমিক কত পেলাম সেটা বিষয় না। ছপাক সিনেমাটিও তেমনই। সিনেমাটির পারিশ্রমিক না দিলেও কষ্ট থাকতো না।’

LEAVE A REPLY