প্রস্তুতি শুরু করেছে বিসিবি -উদ্বোধনী অনুষ্ঠান মাতাবেন সালমান-ক্যাটরিনা

ফাইল ছবি

দুয়ারে কড়া নাড়ছে ঘরোয়া ক্রিকেটের সবচেয়ে আকর্ষণীয় টুর্নামেন্ট বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল)। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শ্রদ্ধা জানাতে টুর্নামেন্টের নামকরণও হয়েছে বঙ্গবন্ধু বিপিএল। তাই বিপিএলের এবারের আসরটি বিশেষ মর্যাদা পাচ্ছে। আগামী ৮ ডিসেম্বর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান দিয়ে পর্দা উঠবে টুর্নামেন্টের সপ্তম আসরের। মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে বঙ্গবন্ধু বিপিএলের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

নতুন নেট দিয়ে সাজানো হচ্ছে উইকেটগুলো। মাঠের পরিচর্যায় আগামী দুই দিন একাডেমি মাঠে বন্ধ রাখা হচ্ছে ক্রিকেটারদের অনুশীলন। আজ ও আগামীকাল বন্ধ থাকার পর ৪ ডিসেম্বর থেকে বিপিএলের আনুষ্ঠানিক অনুশীলন শুরু হবে। তখনই ২২ গজে ব্যাট-বলের চূড়ান্ত লড়াইয়ে নেমে পড়বে দলগুলো।স্মরণকালের সবচেয়ে জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠান আয়োজনের কথা আগেই জানিয়েছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। সে লক্ষ্যে প্রস্তুতিও শুরু করে দিয়েছে বিসিবি। ইতিমধ্যে সাত দলের অনুশীলনের জন্য তৈরি করা হচ্ছে বিসিবি একাডেমি মাঠ। অনুশীলনের উইকেটগুলোর পরিচর্যা হচ্ছে।

শেরে বাংলার মূল মাঠের কয়েকটি গ্যালারিতে চেয়ার ভেঙে গেছে। বিপিএলের আগে সেই ভাঙা চেয়ারগুলো ফেলে নতুন চেয়ার বসছে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মঞ্চ তৈরির কাজও শুরু হয়ে গেছে। মূল মঞ্চে ড্যান্সের দলগুলো তাদের অনুশীলন শুরু করে দিবে কয়েক দিনের মধ্যে।

৮ ডিসেম্বর, রবিবার সন্ধ্যায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এই মঞ্চ মাতাবেন বলিউড ও দেশীয় তারকারা। বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসের সেরা এই আয়োজনে দর্শকদের বিনোদিত করতে আসছেন বলিউডের সুপারস্টার সালমান খান। সাল্লু, ভাইজান খ্যাত সালমানের সঙ্গে আসবেন লাস্যময়ী অভিনেত্রী ক্যাটরিনা কাইফ। সালমান-ক্যাটরিনার উপস্থিতি ইতিমধ্যে নিশ্চিত হয়ে গেছে।

বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের চেয়ারম্যান শেখ সোহেল গতকাল এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এছাড়া থাকবেন প্রখ্যাত সংগীত শিল্পী সনু নিগম, কৈলাশ খের। বাংলাদেশ থেকে জেমস ও মমতাজের অংশগ্রহণও নিশ্চিত হয়েছে।

গতকাল জানতে চাইলে শেখ সোহেল বলেছেন, ‘আমরা আগেই বলেছি এবারের আয়োজন হবে ইতিহাসের সেরা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধু বিপিএলের উদ্বোধন করবেন। আমরা ইতিমধ্যে সালমান খান ও ক্যাটরিনা কাইফকে নিশ্চিত করেছি। তারা আসবেন। ওনারা স্টেজ পারফর্ম করবেন। বাংলাদেশ থেকে মমতাজ ও জেমসের বিষয়টিও নিশ্চিত হয়েছে। আরো অনেকে থাকবেন। সবকিছু নিশ্চিত হলে আপনাদের জানাতে পারব। এছাড়া দুই জন বিখ্যাত সংগীত শিল্পী আসবেন। তাদের নামগুলো দুই-একদিনের মধ্যেই চূড়ান্ত হয়ে যাবে।’

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের ব্যাপ্তি হবে প্রায় ৬ ঘণ্টা। চলবে রাত ১০টা পর্যন্ত। বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের চেয়ারম্যান বলেছেন, দর্শনার্থীদের জন্য গেইট খুলে দেওয়া হবে বিকেল ৩টায়। আর গেইট বন্ধ হয়ে যাবে সাড়ে ৫টায়। থাকবে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের টিকিটের সর্বোচ্চ মূল্য ১০ হাজার টাকা। ভিআইপি টিকিট হিসেবে এটি বিক্রি হবে। এছাড়া ৫ হাজার ও ১ হাজার টাকা মূল্যের টিকিটও বিক্রি করা হবে। অনুষ্ঠানের ২ দিন আগে থেকে টিকিট ছাড়া হবে।

উল্লেখ্য, বঙ্গবন্ধু বিপিএলের ট্রফির লড়াইটা শুরু হবে ১১ ডিসেম্বর। প্রথম পর্ব অনুষ্ঠিত হবে মিরপুর স্টেডিয়ামে। দিনে দুটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। উদ্বোধনী দিনে প্রথম ম্যাচে চিটাগং চ্যালেঞ্জার্সের মুখোমুখি হবে সিলেট থান্ডার। সন্ধ্যায় দ্বিতীয় ম্যাচে কুমিল্লা ওয়ারিয়র্সের বিরুদ্ধে মাঠে নামবে রংপুর রেঞ্জার্স।

ইত্তেফাক/এএএম

LEAVE A REPLY