আল-আকসায় ফের শত শত কট্টরপন্থী ইহুদির অনুপ্রবেশ

ইসলামের অন্যতম পবিত্র স্থান আল-আকসা মসজিদে শত শত ইহুদি দখলদার জোর করে ঢুকে পড়েছে।

ফিলিস্তিনি বার্তা সংস্থার বরাতে আনাদলু জানিয়েছে, ইহুদি ধর্মাবলম্বীদের সুক্কত উৎসব উদযাপন উপলক্ষে মসজিদে ঢুকে পড়ে দখলদাররা।

রোববার সকাল থেকেই সাড়ে ছয়শর বেশি ইহুদিকে মসজিদটিতে ঢুকতে দেখা গেছে। এ সময় তাদের সহায়তা করছিল অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইলের নিরাপত্তা বাহিনী।

স্থানীয় বাসিন্দারা বলেন, মুসল্লিরা যখন নামাজ পড়ছিলেন, তখন তাদের ওপর হামলা চালিয়েছে ইসরাইলি পুলিশ। যদিও এর আগে আল-আকসায় ঢুকতে তাদের নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

ইহুদিবাদীদের এই পদক্ষেপকে মসজিদের প্রকাশ্য অবমাননা বলে ঘোষণা করেছে ফিলিস্তিনি নেতারা।

এ অবস্থায় ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের রাজনৈতিক দপ্তরের প্রধান ইসমাইল হানিয়া বলেছেন, আল-আকসা মসজিদকে ভাগ করার ষড়যন্ত্র চলছে। তবে ফিলিস্তিনিরা এই ষড়যন্ত্র বাস্তবায়ন করতে দেবে না। মসজিদুল আকসার কোনো ক্ষতি করতে দেওয়া হবে না।

তিনি দখলদার ইসরায়েলের বিরুদ্ধে অবরোধ আরোপ করতে বিশ্বের সব দেশের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

দখলদার ইহুদিরা সপ্তাহজুড়ে সুক্কত উৎসব উদযাপন করছেন। যেটা রোববার শেষ হওয়ার কথা।

ইসলামের অন্যতম এই পবিত্র স্থানটির দেখভাল করার দায়িত্বে রয়েছে জর্ডান পরিচালিত ধর্মীয় ওয়াকফ কর্তৃপক্ষ।

মুসলমানদের তৃতীয় পবিত্র স্থান আল-আকসা। ইহুদিরা তাদের অংশকে টেম্পল মাউন্ট বলে দাবি করেন। তাদের মতে, প্রাচীন আমলে এখানে তাদের দুটি মন্দির ছিল।

১৯৬৭ সালে মধ্যপ্রাচ্য যুদ্ধে ইসরাইল পূর্ব জেরুজালেম দখল করে নিয়েছে। আর ১৯৮০ সালে পুরো শহরটিকে অন্তর্ভুক্ত করে নেয়। যদিও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় এখনো তার স্বীকৃতি দেয়নি।

LEAVE A REPLY