তুরস্কের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ যুক্তরাষ্ট্রের

তুরস্কের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করল যুক্তরাষ্ট্র। সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে তুরস্কের সেনা অভিযানের জেরে এই নিষেধাজ্ঞা আরোপ করল ওয়াশিংটন।

সোমবার ট্রাম্প তুরস্কের দু’টি কোম্পানি এবং তিনজন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে এই নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়।একই সঙ্গে তুরস্কের সঙ্গে ১০ হাজার কোটি টাকার বাণিজ্য চুক্তির আলোচনা স্থগিত ও তুরস্কের স্টিলের ওপর ৫০ শতাংশ কর বসানো হয়েছে বলেও জানা যায়।

সোমবার এক টুইটে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেন, ‘তুরস্ক যদি এমন মারাত্মক এবং ধ্বংসাত্মক পথ অব্যাহত রাখে তাহলে খুব দ্রুতই তাদের অর্থনীতি পুরোপুরি ধ্বংস করে দেওয়া হবে। তাছাড়া প্রত্যাহার করে নেওয়া সেনাদের পুনরায় সেখানে মোতায়েন করা হবে।’

বিবৃতিতে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেন, আমি সঠিকভাবে (তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ) এরদোয়ানের সঙ্গে পরিষ্কার রয়েছি। তুরস্কের কর্মকাণ্ড মানবিক সংকট এবং সম্ভাব্য যুদ্ধাপরাধের শর্ত তৈরির কারণ হচ্ছে। তুরস্ককে অবশ্যই ধর্মীয় ও নৃতাত্ত্বিক সংখ্যালঘুসহ বেসামরিক মানুষদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে আর এখন বা ভবিষ্যতে এ অঞ্চলে আটক আইএস সন্ত্রাসীদের দায় নিতে হবে।

একটি যুদ্ধ বিরতির আহ্বান জানিয়ে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ানকে টেলিফোন করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স বলেছেন, এ নিষেধাজ্ঞা চলতে থাকবে এবং ক্রমে আরও কঠোর হতে থাকবে যতক্ষণ পর্যন্ত তুরস্ক যুদ্ধবিরতি ঘোষণা না করবে, সংঘাত বন্ধ না করবে এবং দীর্ঘমেয়াদি কোনো শান্তিচুক্তিতে না আসবে।

সূত্র: দ্য গার্ডিয়ান

LEAVE A REPLY