“রাব্বির হাম হুমা কামা রাব্বায়ানি সাগীরা” – by Rezuanul Hoque

গতকাল ভারতের মানালীতে চার বন্ধু মিলে এক কাশ্মীরী শালের দোকানে ঢুকলাম।

ওরা শাল দেখাচ্ছিল। হরেক রকম সুন্দর সুন্দর শাল। প্রচুর কালেকশন ওদের।

এর মধ্যে একজন সেলসম্যান দুটি শাল বের করে বললো, “আপনি এই শালটা আপনার মায়ের জন্য আর এই শালটা আপনার বাবার জন্য নেন। উনারা খুব পছন্দ করবেন”

আমি আর কথা বাড়াইনি।

ওকে কিভাবে বলি, “আমার বাবা-মা কেউই আর বেঁচে নেই”

তাছাড়া তাকে এসব বলেও কি হবে!

বলতে কেন জানি ইচ্ছেও হয়নি।

তবে তার কথায় ওসময় হুট করে মনটা বিষাদে ভরে যায়।

পরে হোটেলে ফিরে গভীর রাতে ঘটনাটি মনে পড়লে খুব কান্না পাচ্ছিল।

ঐ সেলসম্যান খুব নিরীহ একটা প্রস্তাব দেয়, খুব সরল মনেই হয়তো দিয়েছে।

অথচ সেই প্রস্তাব আমার বুকে কতটা হাহাকার তৈরী করেছে, এটা হয়তো তার ধারণারও বাইরে।

আসলে কে কখন কিভাবে কাউকে নিজের অজান্তেই কত কষ্ট দেয় তা কেউই জানেনা।

পছন্দ করে বাবা-মায়ের জন্য কিছু কিনতে না পারার এই কষ্ট যাদের বাবা-মা কেউই আর বেঁচে নেই, তারাই একমাত্র বুঝবে।

আল্লাহ সবাইকে বাবা-মায়ের সেবা করার, বাবা-মাকে খুশি করার, খুশী রাখার সুযোগ দিক।

আমিন।

“রাব্বির হাম হুমা কামা রাব্বায়ানি সাগীরা”

“হে আমার প্রতিপালক! আমার পিতা-মাতার প্রতি দয়া করো, যেমন তারা দয়া, মায়া, মমতা সহকারে শৈশবে আমাকে প্রতিপালন করেছিলেন”

লেখক – Rezuanul Hoque

LEAVE A REPLY