এবার একসঙ্গে অস্ত্র কিনছে ফিনল্যান্ড-সুইডেন

ফিনল্যান্ড এবং সুইডেন একসঙ্গে বহনযোগ্য আগ্নেয়াস্ত্র এবং ট্যাংক-বিধ্বংসী অস্ত্র কিনবে বলে ফিনল্যান্ডের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে। দুই দেশ আনুষ্ঠানিকভাবে ন্যাটোতে যোগদানের জন্য আবেদনপত্র হস্তান্তর করার পর এই খবর সামনে এলো বলে বুধবার ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম গার্ডিয়ান এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে। 

ফিনল্যান্ডের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, ফিনল্যান্ড সুইডিশ অস্ত্র প্রস্তুতকারক সাব ডায়নামিক্সের কাছ থেকে  ট্যাংক-বিধ্বংসী অস্ত্র কেনার চুক্তিতে করবে। 

এছাড়া, নিজেদের সুরক্ষার জন্য দুই দেশের একসঙ্গে অ্যাসল্ট রাইফেল, শটগানসহ বহনযোগ্য আগ্নেয়াস্ত্র কেনারও প্রস্তুতি চলছে বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে। 

ফিনল্যান্ডের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় আরও জানায়, ওই চুক্তির ফলে ক্ষেপণাস্ত্র, রিকোয়েললেস রাইফেল, গোলাবারুদ এবং অন্যান্য  সরঞ্জাম কেনা সম্ভব হবে। 

এর আগে বুধবারই যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট ন্যাটোর সদস্যপদের জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে আবেদন করেছে রাশিয়ার দুই প্রতিবেশী দেশ সুইডেন-ফিনল্যান্ড। 

ন্যাটোর মহাসচিব জেন্স স্টোলটেনবার্গ এই আবেদনকে ‘ঐতিহাসিক মুহূর্ত’ বলে অভিহিত করেছেন। তিনি বলেছেন, আমাদের এই সুযোগ নেওয়া উচিত।

রোববার সুইডেন-ফিনল্যান্ডের নেতারা ন্যাটোর সদস্যপদের জন্য আবেদন করার পক্ষে মত দেন। সোমবার সুইডিশ সংসদ আবেদনের পক্ষে ভোট দেয়। আর ফিনল্যান্ডের সংসদে প্রস্তাব পাশ করে মঙ্গলবার।

রাশিয়ার সঙ্গে ফিনল্যান্ডের দীর্ঘ স্থল ও সমুদ্রসীমা রয়েছে। স্নায়ুযুদ্ধকালীন থেকে এ দুই দেশ সামরিকভাবে নিরপেক্ষ অবস্থান ধরে রাখছে।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এ কারণে রুশ প্রতিবেশী এই দুদেশের ন্যাটোর সদস্যপদের জন্য আবেদন করার ঘটনা তাৎপর্যপূর্ণ।

LEAVE A REPLY