থানায় পুলিশের কেউ টাকা চাইলে কঠোর ব্যবস্থা : ডিএমপি কমিশনার

ডিএমপির কোনো সদস্য দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত থাকলে জিরো টলারেন্স জানিয়ে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার (ডিএমপি) মোহা. শফিকুল ইসলাম বলেছেন, ‘থানায় কোনো ব্যক্তি জিডি করতে বা পুলিশি সহায়তা নিতে এলে পুলিশের কেউ টাকা দাবি করলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ 

আজ রবিবার ডিএমপি হেডকোয়ার্টার্সে মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন। ডিএমপি কমিশনার বলেন, রাজধানী যেহেতু দেশের গুরুত্বপূর্ণ স্থান, তাই এখানে যেন এ ধরনের কোনো ঘটনা না ঘটে সেজন্য আরও বেশি তৎপর থাকতে হবে। পাশাপাশি বাড়াতে হবে গোয়েন্দা নজরদারি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নজরদারি বাড়াতে ইতোমধ্যেই ডিএমপির সাইবার ক্রাইম ইউনিট জোর তৎপরতা শুরু করেছে।তিনি বলেন, দেশের বিভিন্ন স্থানে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির প্রতিবাদে শুধু সনাতন ধর্মাবলম্বী নয়, সকল সম্প্রদায়ের লোকজন অংশগ্রহণ করছে। সে প্রতিবাদ সমাবেশে যোগদান করে একাত্মতা ঘোষণা করে আমরাও তাদের পাশে আছি। ইতোমধ্যে ঢাকার বড় বড় পূজামণ্ডপ ও উপাসনালয়ে পুলিশের উপস্থিতি বাড়ানো হয়েছে। 

ডিএমপি কমিশনার আরও বলেন, দেশের বিভিন্ন স্থানে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের প্রতিবাদে শুধু সনাতন ধর্মাবলম্বী নয়, সব সম্প্রদায়ের লোকজন অংশ নিচ্ছে। জোনাল ডিসিরাও সে প্রতিবাদ সমাবেশে যোগদান করে একাত্মতা ঘোষণা করে বলবে- আমরাও আপনাদের পাশে আছি। এরইমধ্যে ঢাকার বড় বড় পূজামণ্ডপ ও উপাসনালয়ে পুলিশের উপস্থিতি ও নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। তাদের যে কোনও প্রয়োজনে আমরা সর্বাত্মক সহায়তা দিতে প্রস্তুত।

LEAVE A REPLY