কঙ্গোতে ঈদ আনন্দ রূপ নিলো সংঘাতে, পুলিশকে পিটিয়ে হত্যা

আফ্রিকা মহাদেশের রাষ্ট্র কঙ্গোর রাজধানী কিনশাসায় পবিত্র ঈদুল ফিতরের নামাজের সময় প্রতিদ্বন্দ্বী দুই মুসলিম গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় উত্তেজিত জনতার গণপিটুনি ও আগুনে পুলিশের এক কর্মকর্তার মৃত্যু হয়। বার্তাসংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

জানা যায়, কঙ্গোর রাজধানী কিনশাসা শহীদ স্টেডিয়ামের বাইরে গতকাল বৃহস্পতিবার (১২ মে) স্থানীয় সময় সকালের দিকে কঙ্গোর প্রতিদ্বন্দ্বী দুই মুসলিম গোষ্ঠীর নেতৃত্ব নিয়ে বিরোধের সৃষ্টি হয়। সেখানে বিভাজন ভুলে একসঙ্গে ঈদের নামাজ আদায়ের পরিকল্পনায় জমায়েত হয়েছিলো উভয় গোষ্ঠীর সদস্যরা।

কিনশাসা পুলিশের প্রধান সিলভ্যানো কাসোনগো বলেন, ‌‘দুর্ভাগ্যজনকভাবে সেখানে চরমপন্থীরাও ছিলেন; যারা চাননি যে আজ দু’টি গোষ্ঠী ঐক্যবদ্ধ হয়ে একসঙ্গে ঈদের নামাজ আদায় করবেন।’

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা যায়, ভোঁতা বস্তু দিয়ে পুলিশের এক কর্মকর্তার মাথায় আঘাত করছেন একদল জনতা। এক পর্যায়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তিনি। পরে তার দেহে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। তবে এই ভিডিওর সত্যতা তাৎক্ষণিকভাবে নিশ্চিত হতে পারেনি রয়টার্স।

উত্তেজিত জনতা আগুন ধরিয়ে দেওয়ায় পুলিশের এক কর্মকর্তা নিহত হয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছেন সিলভ্যানো কাসোনগো। এছাড়া ওই ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ৪৬ জন।

ইত্তেফাক/টিআর

LEAVE A REPLY