দেব-মিমি-নুসরাতের পরিশ্রম সার্থক

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভা নির্বাচনে এবার ছিল তারকাপ্রার্থীদের ছড়াছড়ি। সিনেমা ছেড়ে গত কয়েক মাস বিজেপি ও তৃণমূলে ভাগ ছিলেন টলিউডের অভিনয় শিল্পীরা। ফলাফল প্রকাশের পর সেই যাত্রা শেষ হলো।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর আসনে আবারও বসবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার এই জয়ে অন্যান্য কর্মীদের মতো টলিউড তারকা দেব, মিমি ও নুসরাত দলকে জেতাতে সবসময় এগিয়ে ছিলেন। তৃণমূল জয়ের খবরের পরই টুইট করলেন মিমি চক্রবর্তী। লিখলেন ‘অপরাজিত। বাংলা আজ যা করে, ভারত আগামীকাল তা ভাবে।’

প্রথম থেকে নির্বাচনের প্রচার পরিকল্পনা দায়িত্ব দেওয়া হয় দলের ৩ তারকাপ্রার্থী দেব, মিমি, নুসরাতকে। মমতা বলেছিলেন, ‘দেব, মিমি, নুসরাতকে বেশি করে সময় দিতে হবে’। এরপরই তারকারা শুটিংয়ের কাজ সেরে যোগ দেন মমতার প্রচারণায়।

দেব-মিমি-নুসরাতের পরিশ্রম সার্থক

দেব বলেন, ‘২০১৯ সালের লোকসভা ভোটের সময়ে এতো জনসমাগম দেখিনি, যা এবারের বিধানসভায় দেখেছি। প্রচার চলাকালীন কোভিডের প্রকোপ বাড়ায় প্রকাশ্য সভায় দাঁড়িয়ে মানুষকে মাস্ক পড়তে বলেছি। এমনকি এটাও বলেছি যে, বাড়ি থেকে বের হবেন না। যাকে খুশি ভোট দিন। আমাদের দলের এই ব্যবহার মানুষের পছন্দ হয়েছে, তারা বুঝেছেন আমরা তাদের পাশে আছি।’

দেব-মিমি-নুসরাতের পরিশ্রম সার্থক

জয়ের খবর জানাতেই নুসরাত টুইটে লেখেন, ‘খেলা হয়েছে, জেতা হয়েছে’।

এবার রেকর্ডসংখ্যক তারকাপ্রার্থী ছিল বিজেপি ও তৃণমূলের। এরমধ্যে বেশিরভাগ বিজেপি প্রার্থী হেরেছেন। অন্যদিকে তৃণমূলের প্রার্থীদের কয়েকজন ছাড়া সবাই জয়ের হাসি হেসেছেন।

দেব-মিমি-নুসরাতের পরিশ্রম সার্থক

জয়ী তারকারা হলেন—তৃণমূলের সোহম চক্রবর্তী, লাভলি মৈত্র, রাজ চক্রবর্তী, কাঞ্চন মল্লিক, মনোজ তেওয়ারি, অদিতি মুন্সী, জুন মালিয়া, ইন্দ্রানীল সেন, চিরঞ্জিৎ চক্রবর্তী, অগ্নীমিত্রা পল (বিজেপি) ও হিরণ চট্টোপাধ্যায়।

পরাজিত তারকারা হলেন—বিজেপির বাবুল সুপ্রিয়, লকেট চ্যাটার্জি, পায়েল সরকার, তনুশ্রী চক্রবর্তী, রুদ্রনীল ঘোষ, পাপিয়া অধিকারী, শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়, যশ দাশগুপ্ত, কল্যাণ চৌবে, অশোক দিন্দা। তৃণমূলের সায়নী ঘোষ, সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়, কৌশানি মুখোপাধ্যায় এবং সিপিএমের দেবদূত ঘোষও পরাজিত হয়েছেন।

LEAVE A REPLY