বিমানের লিজ গ্রহণে ১ হাজার ৩০০ কোটি টাকার অনিয়ম

মিসর থেকে বিমানের লিজ গ্রহণে এক হাজার ৩ শ’ কোটি টাকার অনিয়ম চিহ্নিত করে প্রতিবেদন দিয়েছে সংসদীয় সাব-কমিটি। এ প্রেক্ষিতে বিমানের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের ব্যাখ্যা জানতে কমিটির বৈঠকে তলব করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংসদীয় কমিটি।

সংসদ ভবনে আজ অনুষ্ঠিত ‘বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটি’র ১৭তম বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন কমিটির সভাপতি র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী। বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী, মো. আসলামুল হক, আনোয়ার হোসেন খান, সৈয়দা রুবিনা আক্তার বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন।

বৈঠকে ১ নং সাব-কমিটির তদন্ত রিপোর্ট পেশ করা হয়। বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের ২০২০-২০২১ সালের বাজেট ব্যবহারসহ করোনা মহামারি প্রতিরোধে মন্ত্রণালয়ের পদক্ষেপ সমূহ সম্পর্কে আলোচনা করা হয়। 

এ প্রসঙ্গে কমিটির সভাপতি র,আ,ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, মিসর থেকে বিমান যে উড়োজাহাজ লিজ নিয়েছে, সংসদীয় সাব কমিটির তদন্তে সেখানে এক হাজার ৩শ’ কোটি টাকা অপচয় চিহ্নিত হয়েছে। আমরা এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের কমিটির বৈঠকে ডেকে এনে তাদের কোনো ব্যাখ্যা থাকলে, তা শুনবো। এরপর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করব।

এ বিষয়ে সংসদীয় সাব কমিটির আহবায়ক আসলামুল হক এমপি বলেন, তদন্তে মিসর থেকে বিমানের লিজ গ্রহণে এক হাজার ৩ শ’ কোটি টাকার অনিয়ম পাওয়া গেছে। এ বিষয়ে সাব কমিটির প্রতিবেদনে আমরা বিস্তারিত উল্লেখ করেছি। কমিটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের কমিটির বৈঠকে ডাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

বৈঠকে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ও বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। 

LEAVE A REPLY