কাশ্মীর ইস্যু জড়িয়ে প্রতিবেশী দেশের কড়া ‘ধমক’ খেল পাকিস্তান

কাশ্মীর ইস্যুতে প্রতিবেশী দেশ আফগানিস্তানকে পাশে পেল না পাকিস্তান। ভারতকে কোণঠাসা করতে বিশ্বের যে সব দেশের কাছে দ্বারস্থ হয়েছে ইসলামাবাদ, কার্যত খালি হাতেই ফিরতে হয়েছে। এমনকি ‘বন্ধু’ চীনও জোরালো সাড়া দেয়নি ইমরান খানের আবেদনে। এবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত আফগান রাষ্ট্রদূত রোয়া রহমানিও পাকিস্তানকে তুলোধনা করল। আফগানিস্তানের শান্তি প্রক্রিয়ার সঙ্গে কাশ্মীর ইস্যু জড়িয়ে ইসলামাবাদ যে বিবৃতি জারি করে, তার কড়া নিন্দা করেন রোয়া রহমানি। খবর জিনিউজের।

নিউ ইয়র্ক টাইমসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে আমেরিকায় নিযুক্ত পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূত আসাদ মজিদ জানান, কাশ্মীরের পরিস্থিতি সামলাতে আফগানিস্তানের সীমান্ত থেকে তাদের বিপুল সেনা সরিয়ে পাকিস্তান-ভারত সীমান্তে মোতায়েন করা হতে পারে। যার জেরে কাশ্মীরে শান্তি প্রক্রিয়া বিঘ্নিত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। তার এই মন্তব্যের সমালোচনা করে আফগানিস্তানের রাষ্ট্রদূত রোয়া রোমানি জানান, পাকিস্তানের দায়িত্বজ্ঞানহীন, বেপরোয়া এবং অবিবেচকের মতো মন্তব্য করছে। কাশ্মীরে ইস্যুকে অহেতুক জুড়ে দিয়ে আন্তর্জাতিক মহলে দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চাইছে ইসলামাবাদ। উল্লেখ্য, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নেতৃত্বে আফগানিস্তান এবং তালিবানের মধ্যে শান্তি প্রক্রিয়া চলছে। এই সময় পাকিস্তান সীমান্ত থেকে সেনা সরিয়ে নিলে আফগানিস্তানে শান্তি প্রক্রিয়ায় বিঘ্নিত হতে পারে হুঁশিয়ারি দেওয়ার চেষ্টা করে ইসলামাবাদ। এই পরিপ্রেক্ষিতে আসরাফ ঘানির সরকার স্পষ্ট করে দেয়, সীমান্তে তাদের বিপুল সেনা মোতায়েনে কোনও অর্থ নেই। উল্টে পাকিস্তান আশ্রিত জঙ্গিরাই সেখানে হিংসা ছড়াচ্ছে বলে অভিযোগ করে আফগানিস্তান। পাশাপাশি, এ-ও জানিয়ে দেয়, কাশ্মীর ইস্যু ভারত ও পাকিস্তানের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বিষয়। এর সঙ্গে আফগানিস্তানের নাম জড়ানো দায়িত্বজ্ঞানহীনের মতো কাজ।

LEAVE A REPLY