সামনে ‘চ্যালেঞ্জিং’ ৭ দিন

ওঠানামার মধ্যে ডেঙ্গু আক্রান্তের মোট সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়ছে। চলতি বছরের আগস্ট মাসের ১৭ দিনেই আক্রান্তের সংখ্যা ৩৩ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। এ অবস্থায় আগামী সাত দিন খুব ‘চ্যালেঞ্জিং’ বলে মন্তব্য করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ক্রাইসিস ম্যানেজমেন্ট সেন্টার এন্ড কন্ট্রোল রুমের তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছরের আগস্ট মাসের ১৭ দিন আক্রান্ত হয়েছে ৩৩ হাজার ১৫ জন। পহেলা জানুয়ারি থেকে গতকাল ১৭ আগস্ট পর্যন্ত হাসপাতালে ভর্তি ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা ৫১ হাজার ৪৭৬ জন। চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৪৩ হাজার ৫৮০ জন অর্থাৎ আক্রান্তদের ৮৫ শতাংশ। আক্রান্তদের মধ্যে মারা গেছে ৪০ জন। রোগতত্ত¡, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর) ডেঙ্গুতে ৭০টি সম্ভাব্য মৃত্যু পর্যালোচনা করে মৃত্যুর এই সংখ্যা নিশ্চিত করেছে। তবে বেসরকারি হিসাব অনুযায়ী মোট আক্রান্তের সংখ্যা আরো কয়েক গুণ বেশি। মৃতের সংখ্যা শতাধিক। এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় এই জ¦রে আক্রান্ত হয়েছে ১ হাজার ৪৬০ জন। এর মধ্যে ঢাকায় ৬২১ এবং ঢাকার বাইরে আক্রান্তের সংখ্যা ৮৩৯ জন। আর শুক্রবার ২৪ ঘণ্টায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ১ হাজার ৭১৯ জন। এর মধ্যে ঢাকার ৭৫৯ এবং ঢাকার বাইরে ৯৬০ জন।
৩ জনের মৃত্যু : ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে গতকাল শনিবার তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার রাতে ঢাকা শিশু হাসপাতালে ছয় মাস বয়সী আয়াজুর রহমান, ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সুমন বাশার রাজ (১৮), ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মনোয়ারা বেগমের (৪৫) মৃত্যু হয়।
পরিস্থিতি বুঝতে ৭ দিন সময় লাগবে : ডেঙ্গু পরিস্থিতি কোন দিকে যাবে তা বুঝতে সপ্তাহখানিক সময় লাগবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ। ডেঙ্গু পরিস্থিতি নিয়ে নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে গতকাল তিনি এ কথা বলেন। অনুষ্ঠানে অধিদপ্তরের রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার পরিচালক অধ্যাপক ডা. সানিয়া তহমিনা বলেন, আগামী সাতদিন আমাদের জন্য চ্যালেঞ্জিং। আবহাওয়া আমাদের অনুক‚লে নয়। আমরা যদি এডিসের দুর্গে আঘাত হানতে না পারি, তাহলে পরিস্থিতি কী হবে বলা মুশকিল।

‘স্টপ ডেঙ্গু’ মোবাইল অ্যাপ চালু :
ডেঙ্গুর প্রকোপ থেকে মুক্তি পেতে চালু করা হয়েছে একটি মোবাইল অ্যাপ। ‘স্টপ ডেঙ্গু’ নামের এই অ্যাপ যে কোনো স্মার্টফোনে ইনস্টল করা যাবে। এই অ্যাপের মাধ্যমে মিলবে ডেঙ্গুর চিকিৎসা ও এডিস মশার বিস্তার বিষয়ে বিভিন্ন তথ্য। গতকাল শনিবার সকালে জাতীয় স্কাউট ভবনে ‘পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে এই অ্যাপের উদ্বোধন করা হয়। ই-ক্যাব বাংলাদেশের সার্বিক তত্ত্বাবধানে অ্যাপটি তৈরিতে কারিগরি সহায়তা দেয় ই-পোস্ট ও বিডি-ইয়ুথ। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান, দুর্নীতি দমন কমিশনের কমিশনার ও বাংলাদেশ স্কাউটসের প্রধান জাতীয় কমিশনার ড. মোজাম্মেল হক খান।

source: ভোরের কাগজ

LEAVE A REPLY