চরে ঘুরতে নিয়ে গিয়ে কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ

বগুড়ার সারিয়াকান্দি উপজেলায় যমুনার চরে ঘুরতে নিয়ে গিয়ে এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। গতকাল শুক্রবার দুপুরে যমুনা নদীর ময়ূরের চর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় তিনজনের নাম উল্লেখ করে শুক্রবার রাত ১০টার দিকে সারিয়াকান্দি থানায় মামলা হয়েছে। চিকিৎসার জন্য কিশোরীকে সারিয়াকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে।

মামলার এজাহার, পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানা গেছে, ওই কিশোরীর সঙ্গে শামীম নামের এক যুবকের প্রেমের সম্পর্ক আছে। গতকাল শামীম তাকে যমুনা নদীতে ঘুরতে নিয়ে যান। সারিয়াকান্দির কালীতলা ঘাট থেকে একটি ইঞ্জিনচালিত নৌকা ভাড়া করেন শামীম। পরে নদীর ময়ূরের চর এলাকায় নিয়ে গিয়ে ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করেন। ধর্ষণ শেষে কিশোরীকে অন্য একটি নৌকায় তুলে দেওয়া হয়। নৌকাটি নদীর মাঝামাঝি এলে ওই কিশোরী হাত উঁচু করে চিৎকার করতে থাকেন। পরে ফায়ার সার্ভিসের একটি দল তাকে উদ্ধার করে।

সারিয়াকান্দি উপজেলা ফায়ার সার্ভিস অফিসের স্টেশন কর্মকর্তা আল আমিন প্রথম আলোকে বলেন, গতকাল দুপুরে যমুনা নদীতে নিখোঁজ দুই ভাইকে উদ্ধারে কাজলা ইউনিয়নে নতুন জেগে ওঠা পাকুরিয়া চরে যাচ্ছিল ফায়ার সার্ভিসের একটি দল। এ সময় ওই কিশোরীর চিৎকার শুনে তাকে উদ্ধার করা হয়। পরে তাকে পুলিশি হেফাজতে দেওয়া হয়।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও সারিয়াকান্দি থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আলমগীর হোসেন মুঠোফোনে প্রথম আলোকে বলেন, ওই কিশোরীর মেডিকেল পরীক্ষার জন্য শনিবার বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। প্রতিবেদন পাওয়ার পর ধর্ষণের ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়া যাবে। আসামিদের এখনো গ্রেপ্তার করা যায়নি। আসামিদের ধরতে অভিযান চালানো হচ্ছে।

LEAVE A REPLY