সিডনির “সাফাল” উৎসবে বাংলাদেশ

গত শুক্রবার সিডনির রাইড কাউন্সিলে শেষ হলো তিনদিনব্যাপী ‘সাফাল ফেস্ট’। উৎসবে বাংলাদেশ দলের প্রতিনিধিত্ব করেন সিনেট ক্যান্ডিডেট ডক্টর সাবরিন ফারুকী. সাফাল অস্ট্রেলিয়াতে দক্ষিণ এশিয়ার শিল্প-সংস্কৃতির সবচেয়ে বড় উৎসব. বাংলাদেশ সহ দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর চলচ্চিত্র ও শিল্প- সাহিত্যের উপস্থাপন এবং পরিবেশনা করেন শিল্পীরা। দ্বিতীয়বারের মতো আয়োজিত এ উৎসবে অংশ নেয় অস্ট্রেলিয়ায় বসবাসরত বাংলাদেশ, ভুটান, ভারত, মালদ্বীপ, নেপাল, আফগানিস্তান, পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কার শিল্পীগোষ্ঠীরা।

বাংলাদেশের পক্ষে চিত্র প্রদর্শনী করেন ইসলামিক ক্যালিগ্রাফার সাইফুল ইসলাম এবং পার্থ প্রতিম বালা। উৎসবের দ্বিতীয় দিনে রবীন্দ্রসংগীত, নজরুল গীতি, বাউল ও দেশাত্মবোধক গানের মনোমুগ্ধকর পরিবেশনা করেন খুরশিদ রেজা, লুৎফা খালিদ, ইয়াজ পারভেজ মিহির ও সাকিনা আক্তার। অস্ট্রেলিয়াতে শিল্প-সংস্কৃতি তে বিশেষ অবদানের জন্য ডক্টর সাবরিন ফারুকীকে বিশেষ সম্মাননা প্রদান করা হয়. উৎসবে নাচে-গান বাংলা সংস্কৃতি ও উতিহ্যের একটি আবহ তুলে ধরেন বাংলাদেশের শিল্পিরা।

বাংলাদেশের মনোমুগ্ধকর পরিবেশনা উপস্থিত ভিনদেশী দর্শকদের মুগ্ধ করে. উৎসবে উপস্থিত ছিলেন নিউসাউথ ওয়েলসের (এনএসডাব্লিউ) বিরোধী দলের প্রধান জোডি ম্যাকেই,গৃহায়ণ মন্ত্রী ভিক্টর ডমিনেলো, ফেডারেল এমপি জন এ্যালেক্সান্ডার, এনএসডাব্লিউ আইন পরিষদের সদস্য ড্যানিয়েল মুখিসহ আরো অনেকে।

অস্ট্রেলিয়ান সাউথ এশিয়ান ফোরাম, ম্যাককুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়, কমনওয়েলথ ডিপার্টমেন্ট অব কমিউনিকেশন অ্যান্ড আর্টস ও সিটি অব রাইড যৌথভাবে এ উৎসবের আয়োজন করে।

উৎস: এস বি এস বাংলা

LEAVE A REPLY