বিটিসিএল ফোনের লাইনরেন্ট বাতিল

ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন্স কোম্পানি লি. (বিটিসিএল)-এর টেলিফোন সেবা আরও জনবান্ধব ও সময়োপযোগী করার লক্ষ্যে এই টেলিফোনের মাসিক লাইনরেন্ট বাতিল করা হয়েছে। এখন থেকে মাসিক ১৫০ টাকায় বিটিসিএল থেকে বিটিসিএলে যত খুশি মিনিট কল করা যাবে এবং বিটিসিএল থেকে অন্য যেকোনো অপারেটরে ৫২ পয়সা মিনিট কলচার্জ নির্ধারণ বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়েছে। আগামী ১৬ আগস্ট থেকে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারের সভাপতিত্বে মন্ত্রণালয়ে তার দপ্তরে এ সংক্রান্ত এক বৈঠকে আজ বুধবার এই গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব অশোক কুমার বিশ্বাস এবং বিটিসিএল ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইকবাল মাহমুদসহ ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ এবং বিটিসিএল-এর উধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বিটিসিএলকে জনবান্ধব এবং লাভজনক প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তুলতে সংশ্লিষ্টদের আরও আন্তরিকতা, নিষ্ঠা এবং সর্বোচ্চ সেবার মানসিকতা নিয়ে কাজ করার আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, সর্বোচ্চ গ্রাহক সেবা নিশ্চিত করার মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানটিকে জনবান্ধব সেবা প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তুলতে সম্ভাব্য সব কিছু করা হবে।

অটোমেশন পদ্ধতিতে ঘরে বসেই গ্রাহকরা যাতে সেবা পেতে পারেন সে বিষয়ে করণীয় দিক-নির্দেশনা দেন মন্ত্রী।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, বিশ্ব ব্যাংকের হিসাব অনুযায়ী, বিশ্বের শীর্ষ পাঁচ ক্রমবর্ধমান অর্থনৈতির দেশে ঢুকেছে বাংলাদেশ। অগ্রযাত্রা আরও বেগবান করতে ২০২১ সাল থেকে ২০২৩ সালের মধ্যে দেশ ফাইভজি প্রযুক্তির যুগে প্রবেশ করবে। শহর এবং গ্রামের মধ্যে ডিজিটাল বৈষম্য যাতে না হয়, সেই লক্ষ্যে দেশের ইউনিয়ন পর্যন্ত বিদ্যমান ব্রডব্যান্ড নেটওয়ার্ক ফাইভজি উপযোগী করার প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করেন মন্ত্রী।

তিনি বলেন, দেশব্যাপী বিটিসিএল এর নেটওয়ার্ক রয়েছে। এই নেটওয়ার্ক যথাযথভাবে কাজে লাগাতে হবে। এ সময় মন্ত্রী বিটিসিএল-এর সব ফোন সচল রাখা ও সেবা প্রদানে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন। বাসস

source:ইত্তেফাক/কেকে

LEAVE A REPLY