দুর্দান্ত ব্রাজিল, অসহায় পেরু

কোপা আমেরিকায় গ্রুপ পর্বের ম্যাচে পেরুর বিপক্ষে ৫-০ গোলের জয় পেয়েছে ব্রাজিল। একটি করে গোল করেছেন ক্যাসেমিরো, রবার্তো ফিরমিনো, এভারটন, ডানি আলভেস ও উইলিয়ান।

সাও পাওলোতে কোরিনথিয়ানস অ্যারিনার গ্যালারিতে হলুদ রঙের ছড়াছড়ি। তবে সেটাকে মোটেও বাড়াবাড়ি মনে হয়নি!

শুরু থেকে শেষ; ম্যাচের পুরোটা সময়ই আধিপত্য ছিল ব্রাজিলেরই। সেটা বল দখল, আক্রমণ, গোল সংখ্যা সব দিক থেকেই। প্রথমার্ধে ৩-০ তে এগিয়ে থাকা ব্রাজিল ম্যাচ জিতেছে ৫-০ গোলের ব্যবধানে। গ্যাব্রিয়েল জেসুস শেষ মুহূর্তে পেনাল্টি মিস না করলে স্কোরলাইন ৬-০ হতে পারত অনায়াসে।

ম্যাচের ১২ মিনিটেই ক্যাসেমিরোর গোলে এগিয়ে যায় স্বাগতিকেরা। গোলটা অবশ্য মারকুইনোসের ঝুলিতেই জমা পড়ত। তাঁর হেড গোলপোস্টে লেগে ফিরে আসে। ফিরতি বলে মাথা ছুঁয়ে শুধু কাজটা সারেন ক্যাসেমিরো। এরপর ব্রাজিলের আক্রমণে দিশেহারা পেরু একের পর এক ফাউলের আশ্রয় নেয়। তবে এতে খুব একটা সুফল পায়নি তাঁরা। গোল ব্যবধান বাড়াতে তিতের শিষ্যরা খুব বেশি সময় নেয়নি। ১৯ মিনিটেই ফিরমিনোর গোলে ব্যবধান দ্বিগুণ করে ব্রাজিল। পেরুর দুর্বল রক্ষণ আর শিশুসুলভ গোলকিপিংয়ের সুযোগ নিতে থাকে ফিরমিনো-কুতিনহোরা। মাঝমাঠ খানিকটা ছেড়ে দিয়ে আক্রমণ আর রক্ষণ শক্ত করে চাপ তৈরি করতে থাকা ব্রাজিল বেশ কিছু সুযোগ হাতছাড়া করে। এই যেমন ২৩তম মিনিটে পাল্টা আক্রমণে উঠে আসা এভারটন গোলরক্ষককে একা পেয়েও বল জালে জড়াতে ব্যর্থ হন। যদিও প্রথমার্ধেই দলের তিন নম্বর গোলটি এসেছে তাঁর কাছ থেকেই। প্রথমার্ধের খেলা শেষ হওয়ার আগে ৩৯ মিনিটে গোলের সহজ সুযোগ নষ্ট করেন ব্রাজিলের ম্যানচেস্টার সিটি তারকা জেসুস।

দ্বিতীয়ার্ধে ব্রাজিলকে প্রথমার্ধের চেয়েও বেশি গোছালো মনে হয়েছে। ৫৩ মিনিটে ফিরমিনোর সঙ্গে ওয়ান টু ওয়ান পাসে গোল করেন ডানি আলভেস। নির্ধারিত সময়ের খেলা শেষ হওয়ার কয়েক সেকেন্ড আগে পেরুর কফিনে আরও একটি পেরেক ঠুকে দেয় ব্রাজিল। এবার হন্তারক উইলিয়ান। এভারটনের কাছ থেকে বল পেয়ে কোনাকুনি শটে বল জালে জড়ান উইলিয়ান। নির্ধারিত সময়ের খেলা শেষ হয়ে অতিরিক্ত সময়ের খেলাও প্রায় শেষ। পেরুর গোলরক্ষকের ভুলে তখনই পেনাল্টি পায় ব্রাজিল। কিন্তু জেসুসের শট দুর্দান্তভাবে আটকে দিয়ে শাপমোচন করেন পেরুর গোলরক্ষক গ্যাল্লেসি।

এ জয়ে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করল ব্রাজিল। গ্রুপ ‘বি’ এর তিনে থাকা দলের সঙ্গে কোয়ার্টার ফাইনালে মুখোমুখি হবে সেলেসাওরা। সে ক্ষেত্রে আর্জেন্টিনার সঙ্গে কোয়ার্টার ফাইনালেই ব্রাজিলের দেখা হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। তবে আর্জেন্টিনাকে আগে তিন নম্বর জায়গাটা নিশ্চিত করতে হবে। সে জন্য অবশ্য আর্জেন্টিনা-কাতার ম্যাচ পর্যন্ত অপেক্ষা করা ছাড়া উপায় নেই। 

LEAVE A REPLY