লোকসভা ভোট: কংগ্রেসের ৭০০ পেজ সরিয়ে নিল ফেসবুক

প্রতীকী ছবি।

‘ভুয়া খবর’ ছড়ানো এবং ‘অবিশ্বাসযোগ্য তথ্য প্রচারের’ অভিযোগে কংগ্রেসের ৬৮৭টি পেজ ও অ্যাকাউন্ট সরিয়ে নিয়েছে ফেসবুক। কংগ্রেস আইটি সেলের সঙ্গে যুক্ত এই পেজ বা অ্যাকাউন্টগুলো লোকসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ভুল তথ্য ছড়াতে পারে বলে শঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে। টাইমস অব ইন্ডিয়া, রয়টার্স।

এই অ্যাকাউন্ট বা পেজের সঙ্গে কংগ্রেসের আইটি সেল বা তার সদস্যরা জড়িত ছিলেন বলে জানিয়েছেন ফেসবুকের সাইবার সিকিউরিটি পলিসির প্রধান ন্যাথানিয়েল গ্লেইচার। সোমবার সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘যে কারণে এই নেটওয়ার্কগুলিকে সরানো হয়েছে, তা হল মিথ্যা তথ্য। অর্থাৎ, নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে ভুয়ো অ্যাকাউন্ট বানানো হয়েছিলো। এই কারণেই সরিয়ে দেওয়া হয়েছে।’

‘এই কাজের সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিরা নিজেদের পরিচয় গোপনের চেষ্টা করলেও, আমাদের পর্যালোচনাতে কংগ্রেসের আইটি সেলের জড়িত থাকার বিষয়টি ধরা পড়েছে।’ সাংবাদিকদের জানান গ্লেইচার।

তবে তিনি জানান, ওই অ্যাকাউন্ট বা গ্রুপ বা পেজের তরফে শেয়ার করা কনটেন্টের ভিত্তিতে পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি। মিথ্যা তথ্য বা পরিচয় দিয়ে অ্য়াকাউন্ট বা পেজ ব্যবহার রুখতে সম্প্রতি সক্রিয় হয়েছে মার্ক জুকেরবার্গের সংস্থা। বিশেষত, ভারতে নির্বাচনের আগে ভুয়ো খবর ও প্রোফাইলের ছড়াছড়ি স্বীকার করে নিয়েই তার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করা হচ্ছে।

বিজেপি সাংসদ অনুরাগ ঠাকুরের নেতৃত্বাধীন তথ্য-প্রযুক্তি সংক্রান্ত সংসদীয় কমিটি সম্প্রতি ফেসবুক, টুইটারের মতো সামাজিক মাধ্যমগুলোকে সতর্ক করেছিল। নির্বাচনী আবহে দেশে ভুয়ো খবর ছড়ানো রুখতে সামাজিক মাধ্যমগুলোকেই ব্যবস্থা নিতে হবে বলে স্পষ্ট উল্লেখ করেছিলো কমিটি।

পাশাপাশি পাকিস্তানি নেটওয়ার্কের হয়ে মিথ্যাচারের অভিযোগে ১০৩টি ফেসবুক/ইনস্টাগ্রাম পেজ ও গ্রুপ-কেও বন্ধ করা হয়েছে।

অন্যান্য ভারতীয় রাজনৈতিক দলের সঙ্গে যুক্ত ফেসবুক পেজের বিরুদ্ধেও কি একই ধরনের অভিযোগ রয়েছে? প্রশ্নের উত্তরে এই ফেসবুক কর্মকর্তা জানান, ‘এখনও তদন্ত চলছে। বিশেষজ্ঞরা তদন্ত চালাচ্ছেন।’

এ ব্যাপারে কংগ্রেস নেতা মণীশ তিওয়ারি বলেছেন, ‘খবরের সত্যতা যাচাই করেই প্রতিক্রিয়া দেওয়া হবে।’

source:ইত্তেফাক/টিএস

LEAVE A REPLY